সনাতন ভাবনা ও সংস্কৃতিতে আপনাদের স্বাগতম। সনাতন ধর্মের বিশাল জ্ঞান ভান্ডারের কিছুটা আপনাদের কাছে তুলে ধরার চেষ্টা করছি মাত্র । আশাকরি ভগবানের কৃপায় আপনাদের ভালো লাগবে । আমাদের ফেসবুক পেজটিকে লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন। জয় শ্রীকৃষ্ণ ।।

আজ আপনাদের জন্য থাকবে আয়ুর্বেদ সম্পর্কিত কিছু তথ্য

১.আয়ুস শব্দের অর্থ জীবন এবং বেদ শব্দের অর্থ জ্ঞান তাই আয়ুর্বেদ শব্দের অর্থ জীবন সম্পর্কিত যে জ্ঞান।
২.ছয়টি উপবেদের একটি হল আয়ুর্বেদ।
৩.আয়ুর্বেদের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হল-
"স্বাস্থ্যস্য স্বাস্থ্য রক্ষনম। আতুরাশ্চ বিকার প্রকশনম।।" অর্থাত্‍ সুস্বাস্থ্য বজায় রাখা এবং অসুস্থতার নিরাময় করা।একে আধুনিক চিকিত্‍সাবিজ্ঞানের ভাষায় Preventive&curative health care service বলা হয়।
৪.আটজন চিকিত্‍সক ঋষি কর্তৃক প্রনীত আয়ুর্বেদের আটটি শাখা রয়েছে-
*জেনারেল মেডিসিন বা কায়াচিকিত্‍সা তন্ত্র।
*সার্জারী বা শল্য তন্ত্র।
*নাক-কান-গলা,চক্ষু ও দন্তরোগ-শালক্য তন্ত্র
*পেডিয়াট্রিকস বা শিশুরোগ-কৌমারভৃত্য তন্ত্র
*ফরেনসিক টক্সিকোলজি*এন্টিডোট-আগাদ তন্ত্র
*রিপ্রোডাক্টিভ বা যৌনরোগ-বাজীকরন তন্ত্র
*এন্টি এজিং সায়েন্স-রসায়ন তন্ত্র
*সাইকিয়াট্রি-ভূতবিদ্যা
৫.রোগ নির্নয়ের জন্য আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে আটটি স্পেসিমেন বা বৈশিষ্ঠ্য পরীক্ষা করা হয়-
*আক্রুতি-Appearance,রোগীর চেহারা,হাঁটাচলার ধরন,অবস্থান
*দ্রাক-দৃষ্টিশক্তি
*স্পর্শ-ত্বকের সংবেদনশীলতা
*জিহ্বা-Tongue
*মল-Stool
*মুত্র-Urine
*নদী-Pulse
*শব্দ-রেসপিরেটরী সাউন্ড
৬.আয়ুর্বেদে সপ্তধাতু অর্থাত্‍ রোগের সাথে সম্পর্কযুক্ত সাতটি উপাদানের কথা বলা হয়েছে-
*রক্ত-Blood
*রস-Plasma
*মাংস-Muscle
*মেদ-Fat
*অস্থি-Bone
*মজ্জা-Bone marrow
*শুক্র-Semen
৭.আয়ুর্বেদশাস্ত্রের খ্যতনামা তিনটি বই হল-
*চরক সংহিতা
*শুশ্রুত সংহিতা
*ভেদ সংহিতা
৮.এই শাস্ত্রসমূহে তত্‍কালীন চিকিত্‍সাবিজ্ঞানের বিস্ময়কর উন্নতি লক্ষনীয়।বিভিন্ন ধরনের অঙ্গ প্রতিস্থাপন,যুদ্ধে হারানো নাক,হাত-পা প্রতিস্থাপন,ব্লাড ভেসেল রাপচারে লিগেশন,ক্যটারাক্ট অপারেশন ইত্যাদি জটিল ও সুক্ষ্ম পদ্ধতিসমূহ তত্‍কালীন সময়ে প্রচলিত ছিল বলে জানা যায়।
৮.আয়ুর্বেদীয় চিকিত্‍সাপদ্ধতি বর্তমানে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কর্তৃক স্বীকৃতি প্রাপ্ত একটি চিকিত্‍সাব্যবস্থা।আপনারা জেনে আরো অবাক হবেন যে চরক সংহিতায় বর্নিত Health(স্বাস্থ্য) এর সঙ্গাটিও স্বাস্থ্যের সঙ্গা হিসেবে WHO গ্রহন করেছে।সঙ্গাটি হল-
"সংদোষা সমাগ্নি সংধাতু মলক্রিয়া প্রসন্নাত্মা ইন্দ্রিয়াস মনস্বাথ অভিদ্যতে।।"
(চরক সংহিতা ২৪.৪১)
অর্থাত্‍,"যখন দেহ এবং এর অভ্যন্তরীন জৈবরাসায়নিক প্রক্রিয়া সাম্যবস্থা বজায় থাকে,দেহের বর্জ্যনিষ্কাশন প্রক্রিয়া স্বাভাবিক থাকে,যখন আত্মা,ইন্দ্রিয় ও মন সমাবস্থায় বিরাজ করে সেই অবস্থায় 'স্বাস্থ্য' অর্জিত হয়েছে বলে ধরা হয়।"
প্রাচীন সমৃদ্ধ বৈদিক সভ্যতার নিদর্শনসমূহ ছড়িয়ে দিন সকলের মাঝে।
ওঁ শান্তি শান্তি শান্তি
(ছবিতে আপনারা দেখছেন প্রাচীন আয়ুর্বেদীয় শাস্ত্রে অঙ্কিত মানবদেহের বিভিন্ন তন্ত্র নির্দেশকারী একটি চিত্র)

VEDA, The infallible word of GOD
Share this article :
 
Support : Creating Website | Johny Template | Mas Template
Copyright © 2011. সনাতন ভাবনা ও সংস্কৃতি - All Rights Reserved
Template Created by Creating Website Published by Mas Template
Proudly powered by Blogger