সনাতন ভাবনা ও সংস্কৃতিতে আপনাদের স্বাগতম। সনাতন ধর্মের বিশাল জ্ঞান ভান্ডারের কিছুটা আপনাদের কাছে তুলে ধরার চেষ্টা করছি মাত্র । আশাকরি ভগবানের কৃপায় আপনাদের ভালো লাগবে । আমাদের ফেসবুক পেজটিকে লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন। জয় শ্রীকৃষ্ণ ।।

এ এক আজব শিব মন্দির

এ এক আজব মন্দির | প্রতিদিন সে মিলিয়ে যায় সমুদ্রের কোলে | আবার জেগে ওঠে সমুদ্র থেকে | মুখে মুখে নাম হয়ে গেছে ‘ ডিজঅ্যাপিয়ারিং টেম্পল‘ বা বিলীয়মান মন্দির | গুজরাতে বরোদা থেকে ৪০ কিলোমিটার দূরে কভি কম্বোই নামে একটি ছোট্ট শহরে আছে মহাদেবের এই মন্দির |

১৫০ বছরের এই মন্দিরের পোশাকি নাম স্তম্ভেশ্বর মন্দির | আরব সাগরের এক কোণে কাম্বে উপসাগরের মাঝে দাঁড়িয়ে আছে এই উপাসনালয় | জোয়ারের সময় সমুদ্রের নোনা জল গ্রাস করে নেয় তাকে | আবার ভাটার সময় ধীরে ধীরে সমুদ্র থেকে বেরিয়ে আসে মহাদেবের এই মন্দির |


রোজ একবার করে প্রায় সম্পূর্ণ জলের নীচে চলে যায় মন্দির | আবার ভাটায় বেরিয়ে আসে | সে দেখার মতো দৃশ্য | তিল তিল করে জল এসে ঢেকে দেয় তাকে | আবার একটু একটু করে জল সরে গিয়ে দৃশ্যমান হয় মন্দির | তখন ভক্তরা প্রবেশ করে পুজো অর্চনা সবই করে | এমনকী ঘুরেও বেড়ানো যায় মন্দির লাগোয়া জমিতে | কিন্তু জোয়ার আসার আগে খালি করে দেওয়া হয় মন্দির প্রাঙ্গণ | প্রকৃতি নিজেই এখানে শিবলিঙ্গের জল-অভিষেকের আয়োজন করে |
প্রতি অমাবস্যায় এখানে ধূমধাম করে শিবপুজো হয় | দুধের বদলে দেবতার অভিষেক হয় তেল দিয়ে | পুজোর পাশাপাশি ভক্তদের অন্যতম আকর্ষণ হল জোয়ার ভাটায় মন্দিরের লুকোচুরি খেলা দেখা | সেটি দেখতে হলে অবশ্য সারদিনই ঘাঁটি গেড়ে বসে থাকতে হবে এখানে | জোয়ার ভাটায় মন্দিরের অদৃশ্য এবং দৃশ্যমান হওয়া দেখতে |


Collected from:  Rintu Kumar Chowdhury
Share this article :
 
Support : Creating Website | Johny Template | Mas Template
Copyright © 2011. সনাতন ভাবনা ও সংস্কৃতি - All Rights Reserved
Template Created by Creating Website Published by Mas Template
Proudly powered by Blogger