সনাতন ভাবনা ও সংস্কৃতিতে আপনাদের স্বাগতম। সনাতন ধর্মের বিশাল জ্ঞান ভান্ডারের কিছুটা আপনাদের কাছে তুলে ধরার চেষ্টা করছি মাত্র । আশাকরি ভগবানের কৃপায় আপনাদের ভালো লাগবে । আমাদের ফেসবুক পেজটিকে লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন। জয় শ্রীকৃষ্ণ ।।

বেদে বর্ণিত রক্তসংবহনতন্ত্র

 


পৃথিবীর সর্বপ্রথম সার্জন,প্লাস্টিক সার্জারীর জনক মহর্ষি সুশ্রুত এবং তাঁর কালজয়ী গ্রন্থ সুশ্রুত সংহিতার কথা সবাই জানেন।গ্রন্থটি এতই জনপ্রিয় ছিল যে সেইসময় আরবেও এটি অনুবাদিত হয়েছিল কিতাব-ই-সুশ্রুত নামে।এই গ্রন্থের মূল আলোচ্য বিষয় ই হচ্ছে চিকিত্‍সাবিজ্ঞানের বিভিন্ন জটিল ও সুক্ষ্ম বিষয়ের উপর বিস্তারিত আলোচনা।আজ আপনাদের সামনে আমরা উপস্থিত করব ত্বকীয় তন্ত্রের অংশ বর্ননাকারী সুশ্রুতসংহিতার একটি অংশ যা পড়ে আপনারা হয়তো ধারনা পাবেন যে কি নিখুঁত একটি চিকিত্‍সাব্যবস্থা গড়ে তুলেছিলেন এই আর্যবিজ্ঞানীরা।

আধুনিক চিকিত্‍সা বিজ্ঞানমতে ত্বকের সাতটি স্তর-
১)এপিডার্মিস
-স্ট্র্যটাম কর্নিয়াম
-স্ট্র্যটাম লুসিডাম
-স্ট্র্যটাম গ্র্যনুলোসাম
-স্ট্র্যটাম স্পাইনোসাম
-স্ট্র্যটাম জার্মিনেটিভাম
২)ডার্মিস
৩)হাইপোডার্মিস

সুশ্রুতসংহিতার পূর্বতন্ত্রের শরীর স্থান খন্ডের চতুর্থ অধ্যয়ের চতুর্থ অনুচ্ছেদটি দেখে নেয়া যাক-
অথ সপ্ত ত্বকর্ননম
প্রথমস্ববভাসিনি নামা যা সর্বা...
অর্থাত্‍ এই হল ত্বকের সাতটি স্তর,প্রথমটি হল অবভাসিনি যার পুরুত্ব একটি চালের দানার ১৮ভাগের এক ভাগ।

দ্বিতীয় লোহিত নামা ব্রিহিসোদসভগপ্রমানা... অর্থাত্‍ দ্বিতীয়টির নাম লোহিত যার পুরুত্ব একটি চালের দানার ১৬ভাগের এক ভাগ।এর নাম লোহিতা এবং অনুবীক্ষন যন্ত্রের নিচে দেখলে দেখা যায় এর রঙ লাল বর্নের!

তৃতীয়া শ্বেতা নামা বৃহিদ্বাদশাভাগ... অর্থাত্‍ তৃতীয়টির নাম শ্বেত যার পুরুত্ব চালের দানার ১২ভাগের এক ভাগ।এর নাম শ্বেত এবং অনুবীক্ষনযন্ত্রে এটি দেখতে সাদা রঙের!

চতুর্থি তাম্র নামা বৃহেরষ্টভাগপ্রমানা... অর্থাত্‍ চতুর্থটির নাম তাম্র যা থেকে বিভিন্ন খস পাঁচড়ার উদ্ভব হয় এবং এর পুরুত্ব চালের দানার ১৮ভাগের এক ভাগ।এর নাম তাম্র এবং অনুবীক্ষনযন্ত্রে দেখা যায় এই স্তরটি তাম্র রঙের!

পঞ্চমি বেদিনি নামা বৃহিপঞ্চভাগা... অর্থাত্‍ পঞ্চমটির নাম বেদিনি যা হতে কুষ্ঠরোগের উদ্ভব হয় এবং এর পুরুত্ব চালের দানার পাঁচ ভাগের একভাগ।বেদিনি শব্দের অর্থ হল ভিত্তি আর আধুনিক বিজ্ঞান অনুসারে ত্বকের পঞ্চম স্তরটির অপর নাম স্ট্র্যটাম বেসেল অর্থাত্‍ যে স্তরটি ভিত্তি হিসেবে কাজ করে!

ষষ্ঠি রোহিনি নামা বৃহিপ্রমানা... ষষ্ঠ স্তরের নাম রোহিনী যা থেকে টিউমার,এলিফেন্থিয়াসিস ইত্যাদির উদ্ভব হয়।এটির পুরুত্ব চালের দানার পুরুত্বের সমান।রোহিনী শব্দের অর্থ হল নিরাময়কারী এবং আধুনিক বিজ্ঞানমতে ষষ্ঠ স্তর থেকেই ত্বকীয় ক্ষতের নিরাময় শুরু হয়!

সপ্তমি মংসধর নামা বৃহিদ্বয়া... অর্থাত্‍ সপ্তমটির নাম মংসধর যা থেকে ফিস্টুলা,এবসেস এর উত্‍পত্তি এবং যার পুরুত্ব চালের দানার দ্বিগুন।এই নামের কারন হচ্ছে আধুনিক বিজ্ঞানমতে এই স্তরটিই মাংস ধরে রাখে অর্থাত্‍ নিচে অবস্থিত মাংসপেশীকে আঁটকে রাখে!

প্রাচীন আর্যভারতের অসাধারন বিজ্ঞানচর্চা মানবসভ্যতার জন্য এক অনন্য নিদর্শন ছিল আর পরবর্তীতে পৌরানিক কুসংস্কারে নিমগ্ন হয়ে আমরা ডুবে গেলাম অন্ধকারে আবর্তে।

Collected From: Agneebir Bangla
Share this article :
 
Support : Creating Website | Johny Template | Mas Template
Copyright © 2011. সনাতন ভাবনা ও সংস্কৃতি - All Rights Reserved
Template Created by Creating Website Published by Mas Template
Proudly powered by Blogger