সনাতন ভাবনা ও সংস্কৃতিতে আপনাদের স্বাগতম। সনাতন ধর্মের বিশাল জ্ঞান ভান্ডারের কিছুটা আপনাদের কাছে তুলে ধরার চেষ্টা করছি মাত্র । আশাকরি ভগবানের কৃপায় আপনাদের ভালো লাগবে । আমাদের ফেসবুক পেজটিকে লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন। জয় শ্রীকৃষ্ণ ।।

শ্রীশ্রীগীতা মাহাত্মম

                                                     ওঁ নমো ভগবতে বাসুদেবায়

ঋষিরুবাচ
গীতায়াশ্চৈব মাহাত্ম্যং যথাবত্ সুত মে বদ ।
পুরা নারায়নক্ষেত্রে ব্যাসেন মুনিনোদিতম্‌ ।১।
সুত উবাচ
ভদ্রং ভগবতা পৃষ্টং যদ্ধি গুপ্ততমং পরম্‌ ।
শক্যতে কেন তদ্‌বক্তুং গীতামাহাত্ম্যমুত্তমম্‌ ।২।

কৃষ্ণো জানাতি বৈ সম্যক্‌ কিঞ্চিত্ কুন্তিসুতঃ ফলম্‌ ।
ব্যাসো বা ব্যাসপুত্রো বা যাজ্ঞবল্ক্যোহথ মৈথিল ।৩।

অনুবাদ ঋষি বলিলেন-হে সুত! পুরাকালে নারায়ণক্ষেত্রে বসিয়া মহামুনি ব্যাস আপনার নিকট গীতা মাহাত্ম্য যেরুপ বলিয়াছিলেন, তাহাই আপনি কৃপা করিয়া আমার কাছে বলুন ।১।

অনুবাদ সুত বলিলেন-আপনি যে মঙ্গলময় পরম গুহ্যতম উত্তম বিষয় জিজ্ঞাসা করিলেন সেই অত্যুত্তম গীতা মাহাত্ম্য বলিতে কাহার সামর্থ্য আছে? ।২।

অনুবাদ=ইহা একমাত্র শ্রীকৃষ্ণই জানেন, ইহা অর্জুন, ব্যাসদেব, যাজ্ঞবল্ক্য ও মিথিলারাজ জনক ঋষিও কিছু কিছু জানেন ।৩।

অন্যে শ্রবণতঃ শ্রুত্বা লেশং সংকীর্ত্তয়ন্তি চ ।
তস্মাত্ কিঞ্চিদ্‌ বদাম্যত্র ব্যাসস্যাস্যান্ময়া শ্রুতম্‌ ।৪।

সর্ব্বোপনিষদো গাবো দোগ্ধা গোপালনন্দনঃ ।
পার্থো বত্সঃ সুধীর্ভোক্তা দুগ্ধং গীতামৃতং মহত্ ।৫।


সারথ্যমর্জ্জুনস্যাদৌ কুর্ব্বন গীতামৃতং দদৌ ।
লোকত্রয়োপকারায় তস্মৈ কৃষ্ণাত্মনে নমঃ ।৬।

সংসার-সাগরং ঘোরং তর্ত্তুমিচ্ছতি যো নরঃ ।
গীতানাবং সমাসাদ্য পারং যাতি সুখেন সঃ ।৭।


অনুবাদ =আর অন্য কানে শুনিয়া লেশমাত্র কির্ত্তন করেন; আমি ব্যাসদেবের মুখে যাহা শুনিয়াছি, তেমনি তাহার কিছু এইস্থানে কীর্ত্তন করিতেছি, তাহা শ্রবণ করেন।৪

অনুবাদ=সমস্ত উপনিষদ ধেনুস্বরুপ, শ্রীকৃষ্ণ হইলেন দোহন কর্তা, অর্জুর উহার বত্স আর দুগ্ধ হইল শ্রেষ্ঠ গীতাশাস্ত্র স্বরুপ অমৃত।৫
অনুবাদ=শ্রীকৃষ্ণ অর্জুনের সারথী পদে প্রতিষ্ঠিত হইয়া জগতের উপকারার্থে গীতারুপ অমৃত দান করিয়াছিলেন, সেই শ্রীকৃষ্ণরুপ পরম ব্রহ্মকে প্রণাম করি।্‌

অনুবাদ=সংসাররুপ সাগর উর্ত্তীর্ণ হওয়া বড় শক্ত। যেই নর ইচ্ছা করেন, তিনি গীতারূপ নৌকা লইয়া অনায়াসে পার হইতে সমর্থ হন।

গীতাজ্ঞানঃ শ্রুতং নৈব সদৈবাভ্যাসযোগতঃ ।
মোক্ষমিচ্ছতি মূঢ়াত্মা যাতি বালকহাস্যতাম্‌ ।৮।

যে শৃন্বন্তি পঠন্তেযব গীতাশাস্ত্রমহর্নিশম্‌ ।
ন তে বৈ মানুষা জ্ঞেয়া দেবরূপা ন সংশয়ঃ ।৯।

গীতাজ্ঞানেন সম্বোধং কৃষ্ণঃ প্রাহার্জ্জুনায় বৈ ।
ভক্তিতত্ত্বং পরং তত্র সগুনং বার্থ নির্গুণম্‌ ।১০।

সোপানাষ্টাদশৈরেবং ভক্তি মুক্তি সমুচ্ছ্রিতৈঃ ।
ক্রমশশ্চিত্তশুদ্ধিঃ স্যাত্ প্রেমভক্তাদি কর্ম্মনি ।১১।

অনুবাদ=যে মুঢ়ব্যাক্তি পুনঃ পুনঃঅভ্যাসযোগে গীতাজ্ঞান প্রাপ্ত না হইয়া মোক্ষলাভের ইচ্ছা করিবে, সে বালকের ন্যায় হাস্যাস্পদ হয়।৮

অনুবাদ=যাহারা দিবানিশী গীতাপাঠ বা শ্রবণ করেন তাহারা মানুষ নহেন নিশ্চই দেবতা, ইহা জানিবে।৯

অনুবাদ=গীতাজ্ঞানকে অবলম্বন করিয়া ম্রীকৃষ্ণ অর্জুনের নিকট জ্ঞান শাস্ত্রেও স্বগুন ও নির্গুন ব্রহ্মের তত্ত্বজ্ঞান বলিয়াছিলেন।১০

অনুবাদ=গীতার অষ্টাদশ অধ্যায়রুপ সোপান ভক্তি ও অভক্তির দ্বারা কিশিত; এইরুপ ক্রমে ক্রমে প্রেম ভক্তি আদি কর্ম সকল উঠিয়া চিত্তশুদ্ধি হইয়া থাকে।১১

সাধোর্গীতাম্ভসি স্নানং সংসারমলনাশনম্‌্‌ ।
শ্রদ্ধাহীনস্য তত্ কার্য্যং হস্তিস্নাং বৃথৈব তত্ ।১২।

গীতায়াশ্চ ন জানাতি পঠনং নৈব পাঠনম্‌ ।
স এব মানুষে লোকে মোঘকর্ম্মকরো ভবেত্ ।১৩।

তস্মাদ্‌ গীতাং ন জানাতি নাধমস্তত্পরো জনঃ ।
ধিক্‌ তস্য মানুষং দেহং বিজ্ঞানং কুলশীলতাম্‌ ।১৪।

গীতার্থং ন বিজানাতি নাধমস্তত্পরো জনঃ ।
ধিক্‌ শরীরং শুভং শীলং বিভবং তদ্‌ গৃহাশ্রমম্‌ ।১৫।

অনুবাদ=সাধু ব্যক্তির গীতারূপ পবিত্র জলাশয়ে স্মান করিলে সংসারের সর্বপাপ দূর হয়। আর যাহারা শ্রদ্ধাহীন, তাদের পক্ষে হস্তি স্মানের ন্যায় সে গীতাপাঠ বৃথা হইয়া থাকে ।১২।

অনুবাদ=যে ব্যক্তি গীতার পঠন ও পাঠন জানে না, সে ব্যক্তি নরলোকে যে কর্ম করে, তাহার সবই বৃথা হয় ।১৩।

অনুবাদ=সুতরাং যে গীতামাহাত্ম্যে জানে না, তাহা অপেক্ষা অধম আর কেহই নাই; তাহার মানবদেহে, বিজ্ঞানে ও উচ্চবংশে জন্ম ও সচ্চরিত্রে ধিক্‌ ।১৪।

অনুবাদ=যে গীতার অর্থ জানে না, তাহা অপেক্ষা অধম আর কেহই নাই, তাহার সচ্চরিত্রে-ধনসম্পদে-গৃহাশ্রমে ধিক্‌ ।১৫।

গীতাশাস্ত্রং ন জানাতি নাধমস্তাত্পরো জনঃ ।
ধিক্‌ প্রারব্ধং প্রতিষ্ঠাঞ্চ পূজাং মানং মহত্তমম্‌ ।১৬।

গীতাশাস্ত্রে মতির্নাস্তি সর্ব্বং তন্নিষ্ফলং জগুঃ ।
ধিক্‌ তস্য জ্ঞানদাতারং ব্রতং নিষ্ঠাং তপো যশঃ ।১৭।

গীতার্থ পঠনং নাস্তি নাধমস্তত্পরো জনঃ ।
গীতাগীতং ন যজ্‌ জ্ঞানং তদ্‌ বিদ্ধ্যাসুরসম্মতম্‌ ।১৮।

তন্মোঘং ধর্ম্মরহিতং বেদবেদান-গর্হিতম্‌ ।
তস্মাদ্ধর্ম্মময়ী গীতা সর্ব্বজ্ঞান-প্রযোজিকা ।
সর্ব্বশাস্ত্রসারভূতা বিশুদ্ধা সা বিশিষ্যতে ।১৯।

অনুবাদ=যে গীতাশাস্ত্র জানে না, তাহার অপেক্ষা অধম আর কেহ নাই; তাহার প্রারব্ধে ধিক্‌, কর্ম প্রতিষ্ঠা,পূজা, দান,মান ও মহত্ত্বে ধিক্‌।১৬
অনুবাদ=যাহার গীতাশাস্ত্রে মন নাই, তাহার সবই নিষ্ফল, পন্ডিতেরা এই কথা বলিয়া থাকেন। তাহার জ্ঞানদাতা গুরুকে ধিক্‌, তাহার ব্রত নিষ্ঠা-তপস্যা-সুনামকেও ধিক।১৭

অনুবাদ=যে গীতার অর্থ বোঝেনা, তাহা অপেক্ষ আর অধম কেহই নাই; যে জ্ঞান গীতা সম্মত নহে, সে জ্ঞান অসুর জ্ঞান বলিযা জানিবে। তাহা বৃথা তাহা ধর্মশুন্য, তাহা বেদ বেদান্ত নিন্দিত হইয়াছে।১৮

অনুবাদ=সুতরাং ধর্মময়ী গীতা হয় সর্বজ্ঞানের কারন, এই গীতা শাস্ত্রে সারভূতা ও পবিত্র তাই ইহা সর্বশ্রেষ্ঠ।১৯

যোহধীতে বিষ্ণু পর্ব্বাহে গীতং শ্রীহরিবাসরে ।
স্বপন্‌ জাগ্রন চলনং স্তিষ্ঠন্‌ শত্রুভির্ন সহ্রীয়তে ।২০।

শালগ্রামশিলায়াং বা দেবাগারে শিবালয়ে ।
তীর্থে নদ্যাং পঠেদ্‌ গীতাং সৌভাগং লভতে ধ্রূবম্‌ ।২১।

দেবকীনন্দনঃ কৃষ্ণো গীতাপাঠেন তুষ্যতি ।
যথা ন বেদৈর্দানেন যজ্ঞতীর্থব্রতাদিভিঃ ।২২।

গীতাধীতা চ যেনাপি ভক্তিভাবেন চেতসা ।
বেদশাস্ত্র পুরাণানি তেনাধীতানি সর্ব্বশঃ ।২৩।

অনুবাদ=যিনি হরিবাসরে ও শ্রীবিষ্ণু পর্বদিনে গীতা পাঠ করেন, কিম্বা নিদ্রায় জাগরনে চলিতে দাড়াইতে অথবা যে কোন অবস্থাতেই গীতা পাঠ করেন, শত্রুগণ তাহার কোন ক্ষতি করতে পারে না ।২০

অনুবাদ=যিনি শালগ্রাম-শিলায়, দেবালয়ে শিবালয়ে, তীর্থে বা নদীতীরে গীতাপাঠ করেন, নিশ্চই তাহার সৌভাগ্য লাভ হইয়া থাকে।২১

অনুবাদ=গীতাপাঠ করিলে দেবকী নন্দন শ্রীকৃষ্ণ যেমন তুষ্ট হন, সেইরুপ বেদপাঠ দান যজ্ঞ তীর্থ ও ব্রতাদির দ্বারা তিনি তুষ্ট হন না।২২

অনুবাদ=যিনি ভক্তিভাবযুক্ত চিত্তে গীতাপাঠ করেন, তাহার বেদ পুরাণ সকল শাস্ত্রই পাঠ করা হইয়া থাকে।২৩

যোগস্থানে সিদ্ধপীঠে শিলাগ্রে সত্সভাসু চ ।
যজ্ঞে চ বিষ্ণুভক্তাগ্রে পঠন সিদ্ধিং পরং লভেত্ ।২৪।


গীতাপাঠঞ্চ শ্রবনং যঃ করোতি দিনে দিনে ।
ক্রতবো বাজিমেধাদ্যাঃ কৃতাস্তেন সদক্ষিণাঃ ।২৫।

যঃ শৃনোতি চ গীতার্থং কীর্ত্তয়েত্যেব যঃ পরম্‌ ।
শ্রাবয়েচ্চ পরার্থং বৈ স প্রয়াতি পরং পদম্‌ ।২৬।

গীতায়াঃ পুস্তকং শুদ্ধং যোহর্পয়ত্যেব সাদরাত্ ।
বিধিনা ভক্তিভাবেন তস্য ভার্য্যা প্রিয়া ভবেত্ ।২৭।

অনুবাদ=যিনি যোগস্থানে সিদ্ধপীঠে শালগ্রামশিলা ও অন্য শিলাময় দেবতাস্থানে সত্সভায় যজ্ঞকালে হরিভক্তের নিকটে গীতাপাঠ করেন,তিনি সিদ্ধি লাভ করিয়া থাকেন।২৪

অনুবাদ=যিনি প্রতিদিন গীতাপাঠ বা গীতাপাঠ শ্রবণ করেন, দক্ষিনার সহিত অশ্বমেধাদি যজ্ঞ তাহার হইয়া যায়।২৫

অনুবাদ=যিনি পরম গীতার্থ শ্রবণ করেন বা অপরকে শ্রবন করান, তিনি পরম পদ লাভ করিয়া থাকেন।২৬

অনুবাদ=যিনি ভক্তি ও যত্ন করিয়া শাস্ত্রবিধি অনুসারে গীতাপুস্তক অপরকে দান করেন তাহার ভার্য্যা প্রিয়তমা হয়।২৭

যশঃ সৌভাগ্যমারোগ্যং লভতে নাত্র সংশয় ।
দয়িতানাং প্রিয়ো ভূত্বা পরমং সুখমশ্নুতে ।২৮।

অধিচারোদ্ভবং দুঃখং বরশাপাগতঞ্চ যত্ ।
নোপসর্পতি তত্রৈব যত্র গীতার্চ্চনং গৃহে ।২৯।

তাপত্রয়োদ্ভবা পীড়া নৈব ব্যাধির্ভবেত্ ক্বচিত্ ।
ন শাপো নৈব পাপঞ্চ দুর্গতির্নরকং ন চ ।৩০।

বিস্ফোটকাদয়ো দেহে না বাধন্তে কদাচনঃ ।
লভেত্ কৃষ্ণপদে দাস্যং ভক্তিঞ্চাব্যভিচারিণীম্‌ ।৩১।

অনুবাদ=তিনি যশ, সৌভাগ্য ও অটুট স্বাস্থয লাভ করেন, এবং স্ত্রীর প্রিয় হইয়া পরম সুখ লাভ করেন।২৮

অনুবাদ=যে গৃহে গীতার অর্চনা হয়, সেই সথানে অবিচারজনিত দুঃখ বা অভিশাপজনিত কষ্টভোগ তাহার নিকট আসিতে পারে না।২৯

অনুবাদ=যে স্থানে ত্রিতাপজনিত দুঃখ হয় না, অথবা ব্যাধি হয় না, সে স্থলে শাপ পাপ দুর্গতি, নরক-ভয় কিছুই হয় না।৩০

অনুবাদ=যিনি প্রতিদিন গীতা অর্চনা করেন,তাহার শরীরে কখনও ফোঁড়া প্রভৃতি চর্মরোগ হয় না; তিনি কৃষ্ণপদে দাস্য লাভ এবং একনিষ্ঠ ভক্তি লাভ করেন।৩১

জায়তে সততং সখং সর্ব্বজীবগণৈঃ সহ ।
প্রারব্ধং ভূঞ্জতো বাপি গীতাভ্যাসরতস্য চ ।
স মুক্ত স সুখী লোকে কর্ম্মণা নোপলিপ্যতে ।৩২।

মহাপাপাতিপাপনি গীতাধ্যায়ি করোতি চেত্ ।
ন কিঞ্চিত্ স্পৃশ্যতে তস্য নলিনীদলম্ভসা ।৩৩।

অনাচারোদ্ভবং পাপমবাচ্যাদি কৃতঞ্চ যত্।
অভক্ষ্যভক্ষজং দোশমস্পর্শস্পর্শজং তথা ।৩৪।

জ্ঞানাজ্ঞানকৃতং নিত্যমিন্দ্রিয়ৈর্জনিতঞ্চ যত্ ।
তত্ সর্ব্বং নাশমায়াতি গীতাপাঠেন তত্ক্ষণাত্ ।৩৫।

অনুবাদ=যিনি সতত গীতা পাঠ করেন, তিনি প্রারব্ধ ভোগকরিতে থাকিলেও সর্ব্ব জীবগণের সহিত তাহার সখ্যভাব হয়।৩২

অনুবাদ=যিনি গীতাপাঠ করেন, তিনি মুক্ত এবং সুখী হন এবং সকল প্রকার মহাপাপ করিয়া থাকিলেও পদ্মপত্রগত জল যেমন পদ্মে লাগে না তাঁহাকেও সেইরুপ পাপ স্পর্শ করতে পারে না।৩৩।

অনুবাদ=অনাচার (যে সব কাজ করিতে শাস্ত্রে নিষেধ আছে সেইরুপ কাজ) করিলে নিত্য ভক্ষ্য-অভক্ষ্যজাত, স্পর্শ-অস্পর্শজাত এবং ইন্দ্রিয় দ্বারা জ্ঞানাজ্ঞানকৃত পাপ যাহা তাহাও নিত্য গীতাপাঠ করিলে বিনষ্ট হয়।৩৪,৩৫।

সর্ব্বত্র প্রতিভূক্তা চ প্রতিগৃহ্য চ সব্বশঃ ।
গীতাপাঠং প্রকুর্ব্বণো ন লিপ্যতে কদাচন ।৩৬।

রত্নপুর্ণাং মহীং সর্ব্বাং প্রতিগৃহ্যবিধানতঃ ।
গীতাপাঠেন চৈকেন শুদ্ধস্ফটিকবত্ সদা ।৩৭।

যস্যান্তঃকরণং নিত্যং গীতায়াং রমতে সদা ।
য সাগ্নিকঃ সদা জাপী ক্রিয়াবান স চ পন্ডিতঃ ।৩৮।

দর্শনীয় স ধনবান স যোগী জ্ঞানবানপি ।
স এব যাজ্ঞিকো যাজী সর্ব্ববেদার্থদর্শকঃ ।৩৯।

অনুবাদ=সকল স্থানে ভোজনকারী এবং সর্ব্বত্র দান গ্রহনকারী সেই ব্যাক্তি নিত্যগীতা পাঠ করিলে কোন পাপে লিপ্ত হন না।৩৬

অনুবাদ=তিনি যদি অবিধি-সহিত রত্নপুর্ন পৃথিবীকে গ্রহন করিয়াও একবার শুধু গীতা পাঠ করেন, তবে তিনি স্ফটিকের ন্যায় স্থিতিলাভ করেন।৩৭

অনুবাদ=যাহার অন্তকরণ সর্ব্বদই গীতাতে অনুরক্ত থাকে, তিনি সাত্ত্বিক উপকারী ক্রিয়াবান, এবং পন্ডিত।৩৮

অনুবাদ=তিনি দর্শনিয়,ধনবান,যোগী,জ্ঞানবান,যাজ্ঞিক,যাজক এবং সকল বেদের অর্থ বোঝেন।৩৯

গীতায়াঃ পুস্তকং যত্র নিত্যপাঠশ্চ বর্ত্ততে ।
তত্র সর্ব্বাণি তীর্থানি প্রয়াগাদীনি ভূতলে ।৪০।

নিবসন্তি সদা দেহে দেহশেষেহপি সর্ব্বদা ।
সর্ব্বে দেবাশ্চ ঋষয়ো যোগিনো দেহরক্ষকাঃ ।৪১।

গোপালো বালকৃষ্ণোহপি নারদ-ধ্রুবপার্ষদৈঃ ।
সহায়ো জায়তে শীঘ্রং যত্র গীতা প্রবর্ত্ততে ।৪২।

যত্র গীতা বিচারশ্চ পঠনং তথা ।
মেদতে তত্র শ্রীকৃষ্ণো রাধয়া সহ ।৪৩।

অনুবাদ=যেখানে গীতা পুস-ক থাকে ও নিত্য পাঠ হয়, সেখানে প্রয়াগাদি সর্ব্ব তীর্থই বিরাজ করে।৪০

অনুবাদ=যেখানে গীতা পাঠাদি চলিতে থাকে, সেখানে মানব দেহ এবং মৃত্যুর পরেও সর্ব্ব দেবতা, ঋষি ও যোগীরা বাস করিয়া তাহাকে রক্ষা করিয়া থাকেন।৪১

অনুবাদ=যেখানে গীতা পাঠকরা হয়, নারদ ধ্রুব প্রভৃতি ভক্তদের সহিত বালক কৃষ্ণবেশী গোপাল সেখানে শীগ্রই সহায় হইয়া থাকেন।৪২

অনুবাদ=যে স্থানে গীতার বিষয় অলোচনা পঠন ও পাঠন হয়, সে স্থানে ভগবান শ্রীকৃষ্ণ নিজে শ্রীমতী রাধার সহিত আনন্দে ক্রীড়া করিয়া থাকেন।৪৩

শ্রী ভগবানুবাচ
গীতা মে হৃদয়ং পার্থ গীতা মে সারমুত্তমম্‌ ।
গীতা মে জ্ঞানমত্যুগ্রং গীতা মে জ্ঞানমব্যয়ম্‌ ।৪৪।

গীতা মে চোত্তমং স্থানং গীতা মে পরমং পদম্‌ ।
গীতা মে পরমং গুহ্যং গীতা মে পরমো গুরুঃ ।৪৫।

গীতাশ্রয়েহং তিষ্ঠামি গীতা মে পরমং গৃহম্‌ ।
গীতাজ্ঞানং সমাশ্রিত্য ত্রিলোকীং পালয়াম্যহম্‌ ।৪৬।

গীতা মে পরমা বিদ্যা ব্রহ্মরূপা ন সংশয়ঃ ।
অর্দ্ধমাত্রাহরা নিত্যমনির্ব্বাচ্যপদাত্মিকা ।৪৭।

অনুবাদ=ভগবান্‌ শ্রীকৃষ্ণ বলিয়াছেন- হে অর্জুন! গীতা আমার হৃদয় স্বরূপ, গীতা আমার সার পদার্থ, গীতা আমার শ্রেষ্ট জ্ঞান, গীতা আমার অব্যয় জ্ঞান ।৪৪

অনুবাদ=গীতা আমার উত্তম স্থান, গীতা আমার পরম পদ, গীতা আমার পরম গুহ্য, গীতা আমার পরম গুরু ।৪৫

অনুবাদ=গীতার আশ্রয়ে আমি থাকি, গীতা আমার পরম গৃহ, গীতাজ্ঞান আশ্রয় করিয়া আমি ত্রিলোক পালন করি ।৪৬

অনুবাদ=গীতা আমার পরম ব্রহ্মরূপিণী শ্রেষ্ঠ বিদ্যা এ বিষয়ে কোন সন্দেহ নাই, ইহা অর্ধমাত্রা অনির্বাচ্য পদাত্মিকা ।৪৭

গীতা নামানি বক্ষ্যামি গুহ্যানি শৃণু পান্ডব ।
কীর্ত্তনাত্ সর্ব্বপাপানি বিলয়ং যান্তি তত্ক্ষণাত্ ।৪৮।

গঙ্গা গীতা চ সাবিত্রী সীতা সত্যা পতিব্রতা ।
ব্রহ্মাবলির্ব্রহ্মবিদ্যা ত্রিসন্ধ্যা মুক্তিগেহিনী ।৪৯।

অর্দ্ধমাত্রা চিতা নন্দা ভবঘ্নী ভ্রানি-নাশিনী ।
বেদত্রয়ী পরানন্দা তত্ত্বার্থজ্ঞানমঞ্জরী ।৫০।

ইত্যেতানি জপেন্নিত্যং নরো নিশ্চলমানসঃ ।
জ্ঞানসিদ্ধিং লভেন্নিত্যং তথানে- পরমং পদম্‌ ।৫১।
অনুবাদ=হে অর্জুন! গুহ্য গীতা নামসমূহ শ্রবণ কর, এই নামগুলি কীর্তনে তত্ক্ষণাত্ সর্বপাপ দূরে যায় ।৪৮

অনুবাদ=গীতা, গঙ্গা, সাবিত্রী, সীতা, সত্যা, পতিব্রতা, ব্রহ্মাবলি, ব্রহ্মবিদ্যা, ত্রিসন্ধ্যা, মুক্তি-গেহিনী ।৪৯

অনুবাদ=অর্ধমাত্রা, চিতানন্দা, ভবঘ্নী, ভ্রানি-নাশিনী, বেদত্রয়ী, পরনন্দা, তত্ত্বার্থজ্ঞানমঞ্জরী ।৫০।

অনুবাদ=গীতার এই সকল নাম কয়টি যিনি স্থির করিয়া একাগ্রচিত্তে জপ করিবেন, তিনি নিত্যজ্ঞান সিদ্ধিলাভ করেন এবং সেইভাবে অন্তে পরমপদ লাভ করিয়া থাকেন ।৫১।

পাঠেহসমর্থঃ সম্পূর্ণং তদর্দ্ধপাঠমাচরেত্ ।
তদা গোদানজং পুর্ণ্যং লভতে মাত্র সংশয়ঃ ।৫২।

ত্রিভাগং পঠমানস্তু সোমযাগফলং লভেত্ ।
ষড়ংশং জপমানস্তু গঙ্গাস্নানফলং লভেত্ ।৫৩।

তথাধ্যায়দ্বয়ং নিত্যং পঠমানো নিরন্তরম্‌ ।
ইন্দ্রলোকমবাপ্নোতি কল্পমেকং বসেদ্‌ধ্রুবম্‌ ।৫৪।

একমধ্যায়কং নিত্যং পঠতে ভক্তিসংযুতঃ ।
রুদ্রলোকমবাপ্নোতি গনো ভূত্বা বসেচ্চিরম্‌ ।৫৫।

অনুবাদ=সম্পূর্ন গীতা পাঠ করিতে না পারিলে যদি ইহার অর্ধাংশ মাত্র পাঠ করা হয়, তাহা হইলে গোদানজনিত পুণ্য লাভ হয়, ইহাতে কোন সংশয় নাই ।৫২

অনুবাদ=গীতার তিন ভাগের এক ভাগ পাঠ করিলে সেই ব্যক্তির সোমযাগের ফল লাভ হয় এবং ছয় ভাগের এক ভাগ পাঠ করিলে তাহার গঙ্গাস্নানের ফল লাভ হয় ।৫৩।

অনুবাদ=যিনি নিত্য গীতার দুই অধ্যায় পাঠ করেন, তিনি ইন্দ্রলোকে গমন করিয়া এককল্পকাল নিশ্চয়ই তথায় মহানন্দে বাস করিয়া থাকেন ।৫৪।

অনুবাদ=যিনি প্রত্যহ এক অধ্যায় করিয়া ভক্তিযুক্ত মনে গীতা পাঠ করেন, তিনি রুদ্রলোকে যাইয়া ভগবান শিবের অনুচর হইয়া বহুকাল তথায় বাস করেন ।৫৫।


অধ্যায়ার্দ্ধম্‌ চ পাদং বা নিতং যঃ পঠতে জনঃ ।
প্রাপ্নেতি রবিলোকং স মন্বন্তরসমাঃ শতম্‌ ।৫৬।

গীতায়াঃ শ্লোকদশকং সপ্তপঞ্চতুষ্টয়ম্‌ ।
ত্রিদ্ব্যেকমেকমর্দ্ধং বা শ্লোকানাং যঃ পঠেন্নরঃ ।
চন্দ্রলোকমবাপ্নোতি বর্ষাণামযুতং তথা ।৫৭।

গীতার্থমেকপাদঞ্চ শ্লোকমধ্যায়মেব চ ।
স্মরংস্ত্যক্তা জনো দেহং প্রয়াতি পরমং পদম্‌ ।৫৮।

গীআর্থমপি পাঠং বা শৃনুয়াদন্তকালতঃ ।
মহাপাতকযুক্তহপি মুক্তিভাগী ভকেজ্জনঃ ।৫৯।

অনুবাদ=যিনি প্রতিদিন গীতার অর্ধ অধ্যায় বা চারিভাগের এক ভাগ পাঠ করেন, তিনি সুর্যলোকে যাইয়া শত মন্বন-র কাল অবস'ান করেন ।৫৬।

অনুবাদ=যিনি প্রতিদিন গীতার দশ-সাত। পাঁচ- চার। তিন-দুই। দুই-এক বা অর্ধেক শ্লোকও পাঠ করেন, তিনি চন্দ্র লোকে যাইয়া অযুত বত্সর তথায় বাস করিয়া থাকেন ।৫৭।

অনুবাদ=যিনি গীতার অর্ধেক এক চতুর্থাংশ বা একটি শ্লোকও স্মরন করিতে করিতে দেহ ত্যাগ করেন, তিনি পরম পদলাভ করিয়া থাকেন ।৫৮।

অনুবাদ=যিনি মৃত্যুকালে গীতার অর্থ পাঠ বা শ্রবন করেন, তিনি মহা পাপী হইলেও মুক্তির অধিকারী হন ।৫৯।


গীতাপুস্তকসংযুক্তঃ প্রাণাংস্ত্যযক্তা প্রয়াতি যঃ ।
গ বৈকুন্ঠংসমবাপ্নোতি বিষ্ণুণা সহ মোদতে ।৬০।

গীতাধ্যায়সমাযুক্তো মৃতো মানুষতাং ব্রজেত্ ।
গীতাভ্যাসং পুনঃ কৃত্বা লভতে মুক্তিমুত্তমাম্‌ ।৬১।

গীতেত্যুচ্চার সংযুক্তো মিৃয়মাণো গতিং লভেত্ ।
যদ্‌ যত্ কর্ম্ম চ সর্ব্বত্র গীতাপাঠ প্রকীর্ত্তিমত্ ।
তত্তত্ কর্ম্ম চ নির্দ্দোষং ভূত্বা পুর্নত্বমাপ্নুয়াত্ ।৬২।

অনুবাদ=যিনি গীতা পুস্তক সঙ্গে করিয়া প্রানত্যাগ করেন, তিনি বৈকুন্ঠে যান এবং বিষ্ণুর সহিত বাস করিয়া কল্পকাল পরমানন্দে থাকেন।৬০

অনুবাদ=একটি গীতার অধ্যায় সংযুক্ত হইয়া কেহ দেহত্যাগ করিলে আবার তিনি মনুষ্য হইয়া জন্মগ্রহন করেন এবং পুনরায় গীতাভ্যাস করিয়া মুক্তিলাভ করেন।৬১

অনুবাদ=“গীতা” “গীতা” এই শব্দ উচ্চারন করতে করতে য়ঁহার মৃত্যু হয়, তাঁহর সদগতি লাভ হয়। সর্ব্বত্র গীতা পাঠ করত যে কার্য করা যায় সেই কার্য নির্দ্দোষ হইয়া পূর্ণতা প্রাপ্ত হইয়া থাকে।৬২

পিতৃনুদ্দিশ্য যঃ শ্রাদ্ধে গতিাপাঠং করোতি হি ।
সন্তুষ্টাঃ পিতরস্তস্য নিরয়াদ্‌ যান্তি স্বর্গতিম ।৬৩।

গীতাপাঠেন সন্তুষ্টাঃ পিতরঃ শ্রাদ্ধতর্পিতাঃ ।
পিতৃলোকং প্রয়ান্তেব পুত্রাশীর্ব্বাদ তত্পরাঃ ।৬৪।


গীতা পুস্তকদানঞ্চ ধেনু পুচ্ছ সমন্বিতম্‌ ।
কৃত্বা চ তদ্দিনে সম্যক কৃতার্থো জায়তে জনঃ ।৬৫।

পুস্তকং হেমসংযুক্তং গীতায়াঃ প্রকরোতি যঃ ।
দত্ত্বা বিপ্রায় বিদুসে জায়তে ন পুনর্ভবম্‌ ।৬৬।

অনুবাদ=পুর্ব্ব পুরুষদের উদ্দেশ্যে শ্রাদ্ধে কেহ গীতা পাঠ করিলে তাহার পুর্ব্ব পুরুষগন অতীব সন্তুষ্ট হইয়া নরক হইতে উদ্ধার পাইয়া স্বর্গে গমন করেন।৬৩

অনুবাদ=গীতা পাঠের ফলে পুর্ব্ব পুরুষগন সন্তুষ্ট হন, এবং শ্রাদ্ধবাসরে পুত্রগনকে আশির্ব্বাদ করিতে করিতে পিতৃলোকে চলিয়া যান।৬৪

অনুবাদ=যিনি গীতার সহিত ধেনুপুচ্ছ (চামর)দান করেন, তাহার সেইদিনের মনের বাসনা একেবারে পুর্নত্ব লাভ করে।৬৫

অনুবাদ=যিনি স্বর্ণের সহিত ব্রাহ্মনকে গীতা দান করেন, তাহার আর পুনর্বার জন্ম গ্রহন করিতে হয় না।৬৬

শতপুস্তকদানঞ্চ গীতায়ঃ প্রকরোতি যঃ ।
স যাতি ব্রহ্মসদনং পুনরাবৃত্তিদুর্লভম্‌ ।৬৭।

গীতাদানপ্রভাবেন সপ্তকল্পমিতাঃ সমাঃ ।
বিষ্ণুলোকমবাপ্যান্তে বিষ্ণুণা সহ মোদতে ।৬৮।

সম্যক্‌ শ্রুত্বা চ গীতার্থং পুস্তকং যঃ প্রদাপয়েত্ ।
তস্মৈ প্রীতঃ শ্রীভগবান্‌ দদাতি মানসেপ্সিতম্‌ ।৬৯।

দেহং মানুষমাশ্রিত্য চাতুর্ব্বর্ণ্যেষু ভারত ।
ন শৃনোতি ন পঠতি গীতামমৃতরূপিনীম্‌ ।
হস্তাত্ত্যক্ত্রামৃতং প্রাপ্তং স নরো বিষমশ্লুতে ।৭০।

অনুবাদ=যিনি একশত গীতা দান করেন, তিনি ব্রহ্মলোকে যান, তাহার আর জন্মগ্রহন করিতে হয় না ।৬৭

অনুবাদ=গীতা দানের প্রভাবে দাতা সপ্ত কল্পকাল অবধি বিষ্ণুলোকে বিষ্ণুর সহিত আনন্দে বাস করেন ।৬৮

অনুবাদ=যিনি গীতার ব্যাখ্যা সম্যকরূপে শ্রবন করতঃ ঐপুসতক দান করেন, তাঁহার প্রতি ভগবান সন্তুষ্ট হইয়া মনের সকল বাসনা পূর্ন করিয়া থাকেন ।৬৯

অনুবাদ=হে ভারত, চাতুর্বর্ণ মধ্যে মানুষ্য দেহ ধারন করিয়া যিনি অমৃতরূপিনী গীতা গ্রন্থ শ্রবন বা পাঠ করেন না, তিনি হস্ত হইতে অমৃত ত্যাগ করিয়া বিষ ভক্ষন করেন ।৭০
জনঃ সংসারদুঃখার্ত্তো গীতাজ্ঞানং সমালভেত্ ।
পীত্বা গীতামৃতং লোকে লব্ধা ভক্তিং সুখী ভবেত্ ।৭১।

গীতামাশ্রিত্য বহবো ভুভুজো জনকাদায়ঃ ।
নির্ধুতকল্মসা লোকে গতাস্তে পরমং পদম্‌ ।৭২।

গীতাসৃ ন বিশেষোহস্তি জনেষুচ্চারকেষু চ ।
জ্ঞানেস্বেব সমগ্রেষু সমা ব্রহ্মস্বরুপিনী ।৭৩।

যোহভিমানেন গর্বেন গীতানিন্দাং করোতি চ ।
সমেতি নরকং ঘোরং যাবদাহূতসংপ্লবম্‌ ।৭৪।

অনুবাদ=সংসার দুঃখে পীড়িত ব্যক্তি গীতারুপ জ্ঞান লাভ করিলে, তবে সে গীতার অমৃত পান করিয়া ভক্তি লাভ করিয়া সুখী হয়।৭১

অনুবাদ=গীতাকে আশ্রয় করিয়া জনকাদি বহু রাজা নিস্পাপ হইয়া অন্তে পরমপদ পাইয়াছেন।৭২

অনুবাদ=গীতার জ্ঞান বিষয় উচ্চ-নীচ কোন প্রভেদ নাই, ইহা সমস্ত জ্ঞানের পক্ষে সমান, ইহা ব্রহ্মজ্ঞানেরই সমান।৭৩

অনুবাদ=যিনি অভিমান বা গর্বভরে গীতার নিন্দা করেন, তিনি প্রলয়কাল পর্যন্ত ঘোর নরকে বাস করেন।৭৪

অহংঙ্কারেন মূঢ়ত্মা গীতার্থং নৈব মন্যতে ।
কুম্ভীপাকেষু পচ্যেত যাবত্ কল্পক্ষয়ো ভবেত্ ।৭৫।

গীতার্থং বাচ্যমানং যো ন শৃণোতি সমীপতঃ ।
স শূকরভবং যোনিমনেকামধিগচ্ছতি ।৭৬।

চৌর্য্যং কৃত্বা চ গীতায়াঃ পুস্তকং যঃ সমানয়েত্ ।
ন তস্য সফলং কিঞ্চিত্ পঠনঞ্চ বৃথা ভবেত্ ।৭৭।

যঃ শ্রুত্বা নৈব গীতার্থং মোদতে পরমার্থতঃ ।
নৈব তৈস্য ফলং লোকে প্রমত্তস্য যথা শ্রমঃ ।৭৮।

অনুবাদ=অজ্ঞানতা বশতঃ যে মূঢ়াত্মা গীতা না মানে সে যে পর্য্যন্ত না কল্প শেষ হয়, সেই পর্যন্ত কুম্ভীপাক নরকে পচিয়া মরে।৭৫

অনুবাদ=যে সময় গীতার ব্যাখ্যা করা হয়, সেই সময় সেস্থানে থাকিয়া যদি কেহ শ্রবন না করে, তবে সে বহুজন্ম শূকরযোনী প্রাপ্ত হইয়া থাকে।৭৬

অনুবাদ=চুরি করিয়া যে ব্যাক্তি গীতা গ্রন' আপন গৃহে আনে, তাহার সব ফল বৃথা হয় এবং গীতাপাঠেও কোন ফল হয় না।৭৭
অনুবাদ=যে ব্যক্তি গীতার ব্যাখ্যা শ্রবন করিয়া সত্যই পারমার্থিক ভাবে বিভের হন না প্রমত্ত ব্যক্তির পরিশ্রমের ন্যায় তাহার এই পৃথিবীতে কোন কর্মেরই ফল লাভহয়না।৭৮

গীতাং শ্রুত্বা হিরণ্যঞ্চ ভোজং পট্টাম্বরং তথা ।
নিবেদয়েত্ প্রদানার্থং প্রীতয়ে পরমাত্মনঃ ।৭৯।

বাচকং পূজয়েদ্ভক্ত্যা দ্রব্যবস্ত্রাদ্যুপস্করৈঃ ।
অনেকৈর্বহুধা প্রীত্যা তষাতাং ভগবান হরিঃ ।৮০

অনুবাদ=গীতাপাঠ শ্রবন করতঃ পরমাত্মার প্রীতির জন্য, স্বর্ন, ভোজ্য, পট্রবস্ত্র ও গীতা গ্রন্থ দান করিবে ।৭৯

অনুবাদ=যিনি গীতা পাঠ করেন তাঁহাকে বস্ত্রাদি সহ বহুবিধ ভোজ্য দ্রব্য দিয়া পূজা করিলে ভগবান তাহাতেই সন্তুষ্ট হন ।৮০
সূত উবাচ
মাহাত্ম্যমেতদ্‌ গীতায়ঃ কৃষ্ণপ্রোক্তং পরাতনম্‌ ।
গীতান্তে পঠতে যস্তু যথোক্তফলভাগ্‌ ভবেত্ ।৮১।

গীতায়াঃ পঠনং কৃত্বা মাহাত্ম্যং নৈব যঃ পঠত্ ।
বৃথা পাঠফলং তস্য শ্রম এব উদাহৃততঃ ।৮২।

এতন্মঅহাত্ম্যসংযুক্তং গীতা পাঠং করোতি যঃ ।
শ্রদ্ধয়া যঃ শৃণোত্যেব পরমাং গতিমাপ্লুয়াত্ ।৮৩।

শ্রুত্বা গীতামর্থযুক্তাং মাহাত্ম্যং যঃ শৃনোতি চ ।
তস্য পুণ্যফলং লোকে ভবেত্ সর্ব্বসুখাবহম্‌ ।৮৪।

অনুবাদ=এই সকল কথা বলিয়া সূত মুনি পূনঃ বলিলেন-এই গীতামাহাত্ম্য পুরাতন, ইহা ভগবান্‌ শ্রীকৃষ্ণ নিজ মুখে বলিয়াছেন। গীতা পাঠ অন্তে যিনি এই মাহাত্ম্য পরেন, তিনি যথোক্ত ফল লাভ করিয়া থাকেন ।৮১

অনুবাদ=গীতা পাঠ করিয়া যিনি মাহাত্ম্য পাঠ করেন না, তাঁহার গীতা পাঠফল বৃথাশ্রম মাত্রই সার হয় ।৮২

অনুবাদ=যিনি গীতা পাঠ করিয়া মাহাত্ম্যও পাঠ করেন এবং শ্রদ্ধাপূর্বক শ্রবন করেন, তিনি পরমাগতি লাভ করিয়া থাকেন ।৮৩

অনুবাদ=যিনি গীতার ব্যাখ্যা শ্রবন করিয়া গীতার মাহাত্ম্য শ্রবন করেন, তাঁহার পুন্যফল ত্রিলোকে সর্বসুখের কারন হইয়া থাকে ।৮৪




সংগৃহীতঃhttp://banglagita.blogspot.com/
Share this article :
 
Support : Creating Website | Johny Template | Mas Template
Copyright © 2011. সনাতন ভাবনা ও সংস্কৃতি - All Rights Reserved
Template Created by Creating Website Published by Mas Template
Proudly powered by Blogger