সনাতন ভাবনা ও সংস্কৃতিতে আপনাদের স্বাগতম। সনাতন ধর্মের বিশাল জ্ঞান ভান্ডারের কিছুটা আপনাদের কাছে তুলে ধরার চেষ্টা করছি মাত্র । আশাকরি ভগবানের কৃপায় আপনাদের ভালো লাগবে । আমাদের ফেসবুক পেজটিকে লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন। জয় শ্রীকৃষ্ণ ।।

মহাবিজ্ঞানী আইনস্টাইনের শ্রীমদ্ভগবতগীতা সাধনা

আইনস্টাইন, কালজয়ী এক নাম । সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বিজ্ঞানী আইনস্টাইন । বিজ্ঞান জগতে অনেক বিজ্ঞানীর অবদান সময়ের আবর্তে নতুন নতুন আবিষ্কারের ফলে হয়ত ধরে রাখতে পারে না তার বিস্ময় । হয়ে পড়ে কিছুটা ম্লান । কিন্তু বিজ্ঞান জগতে আইনস্টাইনের অবদান স্বর্গের পারিজাত সদৃশ । আইনস্টাইনের ভরশক্তি সমীকরণ E = mc² এবং আপেক্ষিকতা তত্ত্ব (Theory of relativity) আবিষ্কার শুধু এই পৃথিবী গ্রহে নয় । এমনকি ভিন্ন গ্রহে যদি কোন মানুষ বাস করে সেখানেও সৃষ্টি করবে একই বিস্ময়, একই কৌতুহল ।


এখানে বিস্ময়ের ব্যাপার হল আইনস্টাইন ইহুদি বংশোদ্ভূত হয়েও নিয়মিত শ্রীমদ্ভগবতগীতা চর্চা করতেন । আরও বিস্ময় এবং মজার ব্যাপার হল যে নিয়মিত গীতা পাঠ এবং গীতা ধ্যানের ফসলই হল আইনস্টাইনের উক্ত দুটি যুগান্তরকারী আবিষ্কার । বর্হিবিশ্বে শ্রীমদ্ভগবতগীতা প্রচারের প্রারম্ভিক ইতিহাস এবং আইনস্টাইনের গীতা সাধনা শীর্ষক প্রাঞ্জল এবং প্রাণবন্ত আলোচনা শুনেছিলাম এপার বাংলা, ওপার বাংলার পন্ডিত জগতের অনন্য সাধারণ ব্যক্তিত্ব পন্ডিত প্রবর রাঁসমোহন চক্রবর্তী এম.এ.পি.এইচ.ডি পুরাণরত্ন বিদ্যাবিনোদ মহোদয়ের কাছ থেকে ঐতিহ্যবাহী কুমিল্লা রামমালা ছাত্রাবাসে গীতা জয়ন্তি উপলক্ষে আয়োযিত অনুষ্ঠানে ।

রাঁস মোহন চক্রবর্তীর উক্ত আলোচনা আজও অম্লান, আজও হৃদয়কে নাড়া দেয় । ভারতে ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক রাজত্বের শেষ প্রহর । ব্রিটিশরা বুঝতে পেরেছিল ভারতবর্ষে তাদের রাজত্বের মেয়াদ শেষ । তাদেরকে সবকিছু গুটিয়ে অচিরেই ভারত ছেড়ে যেতে হবে । তারা চিন্তা করল যদি ভারত ছাড়তে হয়, তবে ভারত থেকে এমন এক অমূল্য সম্পদ তারা নিয়ে যায় যার আবেদন বিশ্বজনীন এবং কালজয়ী । বলা বাহুল্য এই কালজয়ী অমূল্য সম্পদ আর কিছুই নয়, তা হল ইংরেজিতে অনুবাদ করা শ্রীশ্রী গীতা । শ্রীমদ্ভাগবদগীতার ইংরেজি অনুবাদে প্রথম উদ্যোগী ভূমিকা নেন চার্লস উইলকিন্স যিনি ইষ্ট ইন্ডিয়া কোম্পানীর হেষ্টিংস । এখন যদিও প্রায় পশ্চাশোর্ধ বিদেশী ভাষায় গীতার বিভিন্ন সংস্করণ প্রকাশিত হচ্ছে । Theory of relativity লিখে নোবেল পুরষ্কার বিজয়ী আইনস্টাইন তখন প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়ে পদার্থ বিজ্ঞান বিষয়ের প্রধান । ভারতের কয়েকজন পদার্থ বিজ্ঞানের অধ্যাপক আপেক্ষিক তত্ত্ব বিষয়ে আলোচনার উদ্দেশ্যে উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে আইনস্টাইনের সাথে দেখা করতে যান । বলা বাহুল্য আইনস্টাইনের আপেক্ষিকতা তত্ত্ব আবিষ্কারের পর পৃথিবীতে মাত্র গুটি কয়েক পদার্থ বিজ্ঞানী তাহা বুঝতে পেরেছিলেন । আইনস্টাইন আসলেন এবং সকলকে বিষ্ময়াভিভুত করে সংস্কৃতে প্রশ্ন করলেন -

কিংতে নাম? (তোমাদের নাম কি?)
কথম আগসি? (কোথা হতে এসেছ?)

সাক্ষাৎপ্রার্থী ভারতীয় অধ্যাপক বৃন্দের চক্ষু স্থির, হতবিহবল চিত্তে তারা উত্তর দিল ।
We don’t know how to speak in Sanskrit
(আমরা সংস্কৃতে কথা বলতে জানি না)
Please speak with us in English
(অনুগ্রহপূর্বক আমাদের সাথে ইংরেজিতে কথা বলুন)

আইনস্টাইন ঝড়ের বেগে ক্ষীপ্র হয়ে বললেন- What! You say you are Indians. But you can not speak in Sanskrit. (কি! তোমরা বলছ তোমরা ভারতীয়, কিন্তু সংস্কৃত জান না)

উত্তরে ভারতীয়রা বলল- Sanskrit is a dead language in our country. It is used only in ancestral functions. (সংস্কৃত হল আমাদের দেশের একটি প্রাণহীন ভাষা । কেবল শ্রাদ্ধ অনুষ্ঠানে ইহা ব্যবহার করা হয়)

আইনস্টাইন তেলে বেগুনে জ্বলে রূদ্র মূর্তি ধারণ করলেন এবং বললেন – who says sanskrit is the dead language? It is the sole living language in the world. (কে বলে সংস্কৃত প্রাণহীন ভাষা? পৃথিবীতে একমাত্র জীবন্ত ভাষা হল সংস্কৃত)

তারপর আইনস্টাইনের বক্তব্য নিম্নরূপ-
“আমি ইংরেজীতে অনুবাদ করা গীতা পড়তে পড়তে অবাক হয়ে যাই, আত্মস্থ হয়ে পরি এবং এই আত্মস্থ অবস্থায় পদার্থ বিজ্ঞানের অতিদুর্বোধ্য আপেক্ষিকতা তত্ত্ব আমার কাছে সূর্যের আলো মত সহজ সরল হয়ে যায়, সকল জটিল তত্ত্ব হয়েযায় সরল ।”

আইনস্টাইন আরও বললেন – “আমি দুধের স্বাদ ঘোলে মেটাতে চাই না । সংস্কৃত অক্ষরে লেখা মূলগীতা গ্রন্থ পাঠের জন্য আমি নিজে সংস্কৃত বর্ণমালা, সংস্কৃত ব্যাকরণ আয়ত্ব করি । আমার উপলব্ধি হল –

অমৃতং মধুরং সম্যক, সংস্কৃতং হি ততোধিক্ম ।
যতদিন বিন্ধ্যহিমাচল পর্বত থাকবে দন্ডায়মান,
যতদিন গঙ্গা, কাবেরী, গোদাবরী রবে বহমান
ততদিন সংস্কৃত থাকবে দীপ্তিমান ।

ভারতীয় পদার্থবিদরা লজ্জায় মাথা নত করে রইল । অনুধাবন করতে পারল ভারতীয় সংস্কৃত ভাষা এবং গীতাগ্রন্থ কত প্রভাবশালী ও সমৃদ্ধ ।

Written by : Sankirtan Madhab Das
Share this article :
 
Support : Creating Website | Johny Template | Mas Template
Copyright © 2011. সনাতন ভাবনা ও সংস্কৃতি - All Rights Reserved
Template Created by Creating Website Published by Mas Template
Proudly powered by Blogger